Tuesday, August 25, 2015

আওয়ামী লীগের পদ টাকায় বিক্রি হয়


আওয়ামী লীগের পদ টাকায় বিক্রি হয় 


ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ বলেছেন, যখন ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা-কর্মীরা দেখে আওয়ামী লীগের পদ টাকায় বিক্রি হয় তখন তারাও উৎসাহিত হয়। কমিটিতে ঢুকতে হলে যখন টাকা দিয়ে ঢুকতে হয় তখন তাদের টাকার প্রতি উৎসাহ বাড়ে। জিল্লুর রহমানের সঞ্চালনায় বৃহস্পতিবার বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আইতে তৃতীয় মাত্রা শীর্ষক টকশোত এসব কথা বলেন তিনি। 
  
সাবেক এ ছাত্রনেতা বলেন, ঘুড়ি ওড়ে নাটাইয়ের জোরে। ছাত্রলীগ-যুবলীগকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। দেশের সাম্প্রতিক অবস্থার জন্য দায়ী তারা যারা এদের পরিচালিত করছেন। একজন ছাত্রলীগ কর্মী যদি দেখেন যে জেলা আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক হতে হলে ২৫ লাখ টাকা দিতে হয়, সভাপতি হতে হলে ৫০ লাখ টাকা দিতে হয়, এমপিরা কোটি কোটি টাকার ইয়াবা-ফেনসিডিল ব্যবসায় জড়িত তবে ছাত্রলীগ কেন উৎসাহিত হবে না? যারা একসময় রিকশা নিয়ে চলতেন এখন তারা ৪-৫ লাখ টাকার স্যুট পরেন, ৫০ হাজার টাকার টাই পরেন- তারা টাকা পান কোথায়? ছাত্রলীগের সাইনবোর্ড ব্যবহার করে দুর্বৃত্তায়িত রাজনীতি করছে তারা। এরা প্রকৃত অর্থে ছাত্রলীগ নয়।
এদের যারা ব্যবহার করছেন তাদের মধ্যে এমপি-মন্ত্রীও রয়েছেন। পঞ্চদশ সংশোধনীর মধ্য দিয়ে মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগের জন্ম হয়েছিল মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে। এ সংশোধনী আওয়ামী লীগের মৌলিক রাজনীতির বিরোধী। এ দেশের মানুষ নির্বাচনের জন্য সবসময় উদগ্রীব থাকে। পৃথিবীর কোথাও ১৫৩ জন বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার ইতিহাস নেই। পরিকল্পিতভাবে ভোটের অধিকার হরণের মাধ্যমে মানুষকে জিম্মি করে রাখা হয়েছে। বর্তমানে দেশে একটি দখলদারী সরকার রয়েছে।
--
Pl see my blogs;


Feel free -- and I request you -- to forward this newsletter to your lists and friends!